1. pratidinbarta24@gmail.com : admin : প্রতিদিনবার্তা২৪
  2. sajalsrabon46@gmail.com : নিজস্ব প্রতিবেদক : নিজস্ব প্রতিবেদক
করোনা মহামারীর মধ্যে বৃষ্টি, ডেঙ্গু সংক্রমণের ঝুঁকি - প্রতিদিনবার্তা২৪.কম
রবিবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১০:২০ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:-
পূর্বাচল প্রবাসী সমাজ কল্যাণ সংস্থা কর্তৃক ঈদ সামগ্রী বিতরন রূপগঞ্জের কাঞ্চন পৌরসভায় ৩ মাস ধরে নিখোঁজ হওয়া এক ব্যবসায়ীর গলিত লাশ উদ্ধার । “সুইসাইড কোনো সমাধান নয়”শেখানো ব্যাক্তিটি নিজেই সুইসাইড করলেন রূপগঞ্জে ছিনতাইকারীদের হাতে পিক আপ ড্রাইভার খুন দর্শকদের অপেক্ষার অবসান ঘটিয়ে ঈদের পরদিন ড:মাহফুজুর রহমানের একক সঙ্গীতানুষ্ঠান “হিমেল হাওয়ায় ছুঁয়ে যায় আমায় তারুণ্যের বিজ্ঞান আয়োজিত ক্যাম্পেইনে বিজয়ী “সৃষ্টির জন্য মানবতা সংগঠন” পূর্বাচল ৩০০ ফিট রাস্তার সমু মার্কেটে বাইক দুর্ঘটনায় একজন নিহত রুপগঞ্জ ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান আবু হোসেন ভুইয়া রানুর খাদ্য সামগ্রী বিতরন ঈদের আনন্দ ভাগাভাগি করতে বৃদ্ধাশ্রমে অসহায় মায়েদের পাশে অভিনেত্রী প্রিয়া আমান মানব সেবার মহান ব্রত নিয়ে এগিয়ে যাচ্ছে সৃষ্টির জন্য মানবতা সংগঠন

করোনা মহামারীর মধ্যে বৃষ্টি, ডেঙ্গু সংক্রমণের ঝুঁকি

রিপোর্টারের নাম:
  • আপডেট টাইম : মঙ্গলবার, ২৮ এপ্রিল, ২০২০
  • ১৭ বার দেখা হয়েছে

সারা দেশ যখন করোনা মোকাবিলায় তখন বৃষ্টি ও অসতর্কতা বাড়িয়ে দিতে পারে ডেঙ্গু সহ মশা বাহী বিভিন্ন রোগ। বিশেষজ্ঞরা বলেন, যদি কর্তৃপক্ষ এডিস মশা নিয়ন্ত্রণে যথাযথ পদক্ষেপ এখনি না নেয় তাহলে করোনা ভাইরাসের পাশাপাশি ডেঙ্গুও দেশে ভয়াবহ পরিস্থিতি তৈরি করতে পারে।

তাই সরকার এই পরিস্থিতি রুখতে “ডেঙ্গু মনিটরিং সেল” গঠনের পাশাপাশি এলজিআরডি ও অন্যান্য মন্ত্রণালয়ের মধ্যকার সভা হতে যাচ্ছে। জানুয়ারি ১ থেকে এখন পর্যন্ত দেশের বিভিন্ন হাসপাতালে ২৯২ জন রোগী ভর্তি আছে যার মধ্যে ৬৫ জন ঢাকার বাইরের বলে জানিয়েছে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়।

এদিকে গত বছর প্রায় ১০১৩৫৪ জন ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগী সনাক্ত হয়েছিল, যার মধ্যে ৪৯৫৪৪ জন ছিল ঢাকার বাইরের এতে মোট মৃত রোগী ছিল ১৭৯ জন। যেহেতু সরকার করোনা বিস্তার শ্লথ করতে ১৬ এপ্রিল থেকে ৫ মে পর্যন্ত সাধারণ ছুটি বাড়িয়েছে ঘরে অসতর্ক থাকাটা ডেঙ্গু আক্রান্ত হওয়ার প্রবণতার ঝুঁকি আরও বেশি বাড়িয়ে দিচ্ছে।

যেহেতু বন্ধে সকল গণ পরিবহন বন্ধ ও যে যার দেশের বাড়িতে চলে গিয়েছে তাই যথেষ্ট লোকবল পাওয়া যাচ্ছে না বলে মশা নিরোধী কার্যক্রম গুলো পুরো দমে শুরু করতে পারছে না বলে জানিয়েছেন এলজিআরডি মন্ত্রী।

এ নিয়ে বিশেষজ্ঞরা কি বলে?

ঢাকায় গত কয়েকদিন থেকে বৃষ্টি হচ্ছে, তাই এখনি যদি কার্যকর ব্যবস্থা না নেওয়া হয় তাহলে বৃষ্টি এডিস মশার উৎপাত আরও বাড়িয়ে দিতে পারে বলে মনে করেন জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের পতঙ্গ বিজ্ঞানী কবিরুল বাশার। তিনি আরও বলেন, নির্মাণ সাইট গুলো এডিস মশা জন্মানোর আদর্শ জায়গা যেহেতু সেখানে বিভিন্ন জায়গায় পানি জমে থাকার সম্ভাবনা থাকে। এবং তিনি কয়েকটা নির্মাণ সাইট ঘুরে প্রচুর সংখ্যক মশার লার্ভা দেখতে পান।

রেল ও বাস ষ্টেশনও এডিস মশা উৎপাদনের ঝুঁকিতে আছে যেহেতু সব বন্ধ এখন। এক জরিপে দেখা যায়, নির্মাণ সাইটের বেইজমেন্টে পাইনি জমা, পাস্টিকের ড্রাম, পানির ট্যাঙ্ক ইত্যাদি প্রধান উৎস হিসেবে কাজ করছে মশা বিস্তারের। এডিস মশা প্রজননের উৎসের মধ্যে ১১.৬৯ ভাগ বেইজমেন্টের পানি থেকে, ২২.০৮ ভাগ প্লাস্টিকের ড্রাম থেকে, ১০.৩৯ ভাগ প্লাস্টিকের বালতি থেকে, ৯.০৯ ভাগ পানির ট্যাংক থেকে, লিফটের নিচের খাদ থেকে ৫.১৯ ভাগ, বিভিন্ন সিরামিকের পাত্র থেকে ৩.৯০ ভাগ, মাটির পাত্র থেকে ২.৬০ ভাগ, রঙের পাত্র থেকে ২.৬০ ভাগ এবং অন্যান্য উৎস থেকে ১৫.৫৮ ভাগ বলে জানিয়েছে এক জরিপ।

কবিরুল বাশার এ নিয়ে আশা-ব্যক্ত করেন যে মশা প্রজননের উৎসগুলো যাতে দ্রুত ধ্বংস করা হয় এবং পরিষ্কার করার পাশাপাশি যেন জেলা ও উপজেলা পর্যায় পর্যন্ত সতর্কতা তৈরি করতে বিভিন্ন ক্যাম্পেইন করা হয়। অন্যদিকে বাংলাদেশ প্রাণীবিজ্ঞান সমিতির সভাপতি মনজুর চৌধুরী বলেন, বৃষ্টি কিউলেক্স মশার বিস্তার কমালেও এডিস মশা বিস্তার বাড়াবে তাই কোন ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগীর ঠিকানার ৫০ মিটার ব্যাসার্ধ জুড়ে মশা নিরোধক ছিটানো ও গত বছরের জরিপে কোন কোন এলাকায় বেশি ডেঙ্গু রোগী ছিল সে অনুসারে কাজ করতে আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

 

প্রতিকারের চেয়ে প্রতিরোধ উত্তম

গত রোববার জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় অন্যান্য বিভাগ ও মন্ত্রণালয়কে “ডেঙ্গু মনিটরিং সেল” গঠনে বার্তা পাঠায় তিন দিনের মধ্যে তাদের থেকে প্রতিনিধি পাঠাতে। উক্ত কমিটি গত বছরের মত সচেতনতা বাড়ানো ও এডিস মশা নিয়ন্ত্রণে ভূমিকা রাখবে। এলজিআরডি মন্ত্রী তাজুল ইসলাম বলেন, পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতার উদ্যোগ ও এডিস মশা নিয়ন্ত্রণে আজ সভায় তারা পরিকল্পনা ও কার্যপ্রণালী ব্যক্ত করবেন। যেহেতু লক-ডাউনের কারণে যথেষ্ট লোকবল পাওয়া যাচ্ছে না তাই তারা আলোচনা করবেন ডেঙ্গু নিয়ে এ সকল কার্যক্রম গুলো কিভাবে আরও ত্বরান্বিত করা যায়। প্রতিনিধি দলের মধ্যে থাকবে ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন, ওয়াসা, রাজউক আরও সংশ্লিষ্ট বিভাগ।

সিটি কর্পোরেশন এ নিয়ে কি বলে?

ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মমিনুর রহমান মামুন বলেন,  তারা প্রতিদিন লার্ভা ধ্বংস করার ওষুধ প্রয়োগ করছেন। এলজিআরডি মন্ত্রীর নির্দেশনা অনুযায়ী তারা মশার প্রজনন ক্ষেত্রগুলো ধ্বংস করছেন এবং এ ব্যাপারে তাদের অবহিত করা হয়েছে। তিনি আরও বলেন, তারা নির্মাণ সাইট গুলোতেও লার্ভা-ধ্বংসকারী ওষুধ প্রয়োগ করেছে যদিও অনেক নির্মাণ সাইটে প্রবেশ সংরক্ষিত বলে তাদের লোকবল সেখানে পৌঁছাতে পারে নি। তিনি এ নিয়ে ভবন ও নির্মাণ সাইটের মালিকদের নিজ থেকে উদ্যোগ নিতে আহ্বান করেন।  ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ব্রিগেডিয়ার জেনারেল শরিফ আহমেদ তারা দিনে দুইবার লার্ভা ধ্বংসকারী ওষুধ ছিটাচ্ছে ও ওয়াটার ব্রাউজার ব্যবহার করছেন। তাছাড়া তিনি এও বলেন, তারা বিশেষকরে নির্মাণ সাইটগুলো লক্ষ্য করছেন যাতে এডিস মশা প্রজনন না করতে পারে।

নিউজটি শেয়ার করুন আপনার সোশ্যাল মিডিয়ায়..

এ জাতীয় আরো সংবাদ..

© স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০২০প্রতিদিনবার্তা২৪.কম

Theme Customized BY LatestNews