1. pratidinbarta24@gmail.com : admin : প্রতিদিনবার্তা২৪
  2. sajalsrabon46@gmail.com : নিজস্ব প্রতিবেদক : নিজস্ব প্রতিবেদক
ঈদের আনন্দ ভাগাভাগি করতে বৃদ্ধাশ্রমে অসহায় মায়েদের পাশে অভিনেত্রী প্রিয়া আমান - প্রতিদিনবার্তা২৪.কম
শুক্রবার, ০২ অক্টোবর ২০২০, ১২:৩৬ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:-
পূর্বাচল প্রবাসী সমাজ কল্যাণ সংস্থা কর্তৃক ঈদ সামগ্রী বিতরন রূপগঞ্জের কাঞ্চন পৌরসভায় ৩ মাস ধরে নিখোঁজ হওয়া এক ব্যবসায়ীর গলিত লাশ উদ্ধার । “সুইসাইড কোনো সমাধান নয়”শেখানো ব্যাক্তিটি নিজেই সুইসাইড করলেন রূপগঞ্জে ছিনতাইকারীদের হাতে পিক আপ ড্রাইভার খুন দর্শকদের অপেক্ষার অবসান ঘটিয়ে ঈদের পরদিন ড:মাহফুজুর রহমানের একক সঙ্গীতানুষ্ঠান “হিমেল হাওয়ায় ছুঁয়ে যায় আমায় তারুণ্যের বিজ্ঞান আয়োজিত ক্যাম্পেইনে বিজয়ী “সৃষ্টির জন্য মানবতা সংগঠন” পূর্বাচল ৩০০ ফিট রাস্তার সমু মার্কেটে বাইক দুর্ঘটনায় একজন নিহত রুপগঞ্জ ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান আবু হোসেন ভুইয়া রানুর খাদ্য সামগ্রী বিতরন ঈদের আনন্দ ভাগাভাগি করতে বৃদ্ধাশ্রমে অসহায় মায়েদের পাশে অভিনেত্রী প্রিয়া আমান মানব সেবার মহান ব্রত নিয়ে এগিয়ে যাচ্ছে সৃষ্টির জন্য মানবতা সংগঠন

ঈদের আনন্দ ভাগাভাগি করতে বৃদ্ধাশ্রমে অসহায় মায়েদের পাশে অভিনেত্রী প্রিয়া আমান

রিপোর্টারের নাম:
  • আপডেট টাইম : বৃহস্পতিবার, ২১ মে, ২০২০
  • ২৬ বার দেখা হয়েছে

মেহেদী হাসানঃ সামনেই ঈদুল ফিতর। তবুও দীর্ঘ দিন ধরে বৃদ্ধাশ্রমে ঈদ পালন করেছেন অসংখ্য সুবিধাবঞ্চিত বাবা-মা। বৃদ্ধাশ্রমে থাকা বৃদ্ধদের সন্তানরা বেশির ভাগই প্রতিষ্ঠিত। এর পরও তাদের ঈদ করতে হয় বৃদ্ধাশ্রমে। আর এই বিশেষ দিনটিতে হতাশা আর শূন্যতা নিয়ে সন্তানের স্মৃতি হাতড়ে বেড়ান বৃদ্ধাশ্রমে থাকা এসব মানুষ। বৃদ্ধাশ্রমের সেই সব মানুষদের সাথে ইফতারের আনন্দ ভাগাভাগি করলেন অভিনেত্রী প্রিয়া আমান। বৃদ্ধাশ্রমের ১০০ জন পরিবারের জন্য নিয়ে গেছেন ইফতার এবং তাদের ঈদের পোশাক। তার মধ্যে ছিল শাড়ি কাপড়, লুঙ্গি ও থ্রি প্রিস।অনেক নামী-দামী বুদ্ধিজীবী, শিল্পী, সাহিত্যিক, শিক্ষক, চাকরিজীবী যারা এক সময় খুব বর্ণাঢ্য জীবনের অধিকারী ছিলেন, বৃদ্ধ বয়সে এসে নিজের সন্তানের দ্বারাই অবহেলা ও বঞ্চনার শিকার হয়ে বৃদ্ধাশ্রমের স্থায়ী বাসিন্দা হতে বাধ্য হচ্ছেন। পিতা মাতার অবদানের কথা ভুলে গেলে চলবে না, যোগ করে বলেন এ অভিনেত্রী।

প্রতিটি মানুষকে বৃদ্ধাশ্রমের মায়েদের পাশে দাঁড়ানোর আহ্বান জানান প্রিয়া আমান। তিনি বলেন,আমি এখানে এসব মায়েদেরকে নিজের সাধ্য মতো পাশে দাঁড়ানোর চেষ্টা করেছি। চেষ্টা করেছি একটি দিন ইফতার আর ঈদের আনন্দ ভাগাভাগি করে নিতে। আপনার যদি ১ টাকার সামর্থ থাকে তা নিয়ে এগিয়ে আসুন। আনন্দ ভাগাভাগি করলে দিগুন হয়, আনন্দের সাগর হয়। আসুন তাদের পাশে দাঁড়াই।

প্রিয়া বলেন, এই ঈদে শপিং করার কি কোনো দরকার আছে? আমি মনে করি তার দরকার নেই। আমাদের সকলেরই কিছু আত্মীয় রয়েছেন যারা কিছুটা আর্থিক সহায়তা পেলে খুশি হবেন। তাদের সহায়তা করুন। ঈদ আনন্দ নিয়ে আসে ঠিকই। তবে করোনা ভাইরাস প্রাদুর্ভাবের মধ্যে এবার আনন্দের কোনো অনুভূতি থাকার কথা না।

বুধবার প্রিয়া আমান কাটিয়েছেন উত্তরা সংলগ্ন মৈনারটেক এলাকায় অবস্থিত “আপন নিবাস” নামের একটি বৃদ্ধাশ্রমের একশত জন অসহায় মানুষের সঙ্গে। এখানে আছেন বৃদ্ধা, প্রতিবন্ধী ও বিকলাঙ্গ শিশু এবং অন্তঃসত্ত্বা কিছু নারী।এই প্রসঙ্গে প্রিয়া বলেন, এইসব অসহায় মা, বিকলাঙ্গ ও প্রতিবন্ধী শিশু এবং বিভিন্ন ভাবে ধর্ষিতা গর্ভবতী নারীর পাশে দাঁড়িয়ে মানসিক তৃপ্তি পেয়েছি। এরা বাস্তবিক অর্থেই অসহায়। এসব এদের খুবই দরকারি ছিল। উনারা আজ হেসেছেন। আমার অনুরোধ আপন নিবাস, সহ অন্যকোন বৃদ্ধাশ্রমে যেনো আর কোন মা না আসেন। এরা যেনো সন্তানদের ভালোবাসায় সন্তানদের কাছেই থাকতে পারেন।

নিউজটি শেয়ার করুন আপনার সোশ্যাল মিডিয়ায়..

এ জাতীয় আরো সংবাদ..

© স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০২০প্রতিদিনবার্তা২৪.কম

Theme Customized BY LatestNews